গল্প থেকে শেখা পর্ব - ৫

গল্প থেকে শেখা, পর্ব – ৫

গল্প থেকে শেখা, পর্ব – ৫

গল্পের নাম: ক্রোধ নিয়ন্ত্রণ

ক্রোধ নিয়ন্ত্রণ

একটা ছোট ছেলে সে খুব রাগী ছিল সামান্য কারণেই লেগেছে যেতো।  তার বাবা তাকে একটি পেরেক ভর্তি ব্যাগ দিল এবং বলল যতবার তুমি রেগে যাবে  ততবার একটা করে পেরেক আমাদের পাশের বাগানের কাঠের বেড়াতে লাগিয়ে  আসবে। প্রথম দিনেই ছেলেটিকে বাগানে গিয়ে ৩৭ টি পেরেক মারতে হল। পরের সপ্তাহে ছেলেটি তার রাগকে কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনতে পারল। কাঠে নতুন পেরেকের সংখ্যাও ধীরে ধীরে কমে এলো সে বুঝতে পারল। হাতুড়ি দিয়ে কাঠের পেরাক মারার চেয়ে রাগ নিয়ন্ত্রণ করা অনেক সহজ। 

শেষ পর্যন্ত সেই দিনটি এলো যেদিন তাকে একটি পেরেকও মারতে হলো না। সে তার বাবাকে এই কথা জানালো,  তার বাবা তাকে বলল,  যেসব দিন তুমি তোমার রাগ কে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রন করতে পারবে সেসব দিন তুমি একটি একটি করে পেরেক তুলে ফেলবে। 

অনেক দিন চলে গেল এবং ছেলেটি তার বাবাকে জানাল সব পেরেকই সে তুলে ফেলতে সক্ষম হয়েছে। তার বাবা এবার তার হাত ধরে  তাকে নিয়ে বাগানে গেল এবং তাকে বলল-

“তুমি খুব ভালোভাবে তোমার কাজ সম্পন্ন করেছ। এখন তুমি তোমার রাগকে নিয়ন্ত্রন করতে পারো। কিন্তু দেখো প্রতিটা কাঠে পেরেকের গর্তগুলো রয়ে গেছে। কাঠের বেড়াটি কখনো আগের অবস্থায় ফিরে যাবে না। যখন তুমি কাউকে রেগে গিয়ে কোন কিছু বল তখন তার মনে তুমি যে একটি পেরেক ঢুকিয়ে দিল।  তুমি কতটা দুঃখিত বলেছ তাতে কিছু যায় আসে না বরং ক্ষত টা থেকে যায়। 

 

গল্পের নীতিকথা 

তাই নিজের রাগকে নিয়ন্ত্রন করতে শিখুন  এবং  লোকেদের কখন এমন কিছু বলবেন না যাতে আপনার পরে অনুশোচনা হতে পারে।  জীবনের কিছু জিনিস আছে যা আপনি ফিরে নিতে অক্ষম।

YouTube player

 

BSDI

Comments are closed.